আফগানিস্তানে একদিকে শান্তি আলোচনা, অন্যদিকে যুদ্ধ

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : তালেবানদের লড়াই বেড়েই চলেছে আফগানিস্তানে সরকারি বাহিনীর সঙ্গে। যখনই নতুন নতুন এলাকা দখলের চেষ্টা চালাচ্ছে তালেবানরা, ঠিক তখনই বাধা দিতে এলে সরকারি বাহিনীর সঙ্গে তাদের লড়াই শুরু হচ্ছে। এ প্রেক্ষাপটে শনিবার কাতারের রাজধানী দোহায় দুই পক্ষের মধ্যে শান্তি আলোচনা শুরু হয়।

আল জাজিরার খবরে বলা হয়, আফগানিস্তানের একটি উচ্চ পর্যায়ের আলোচনাকারী দল তালেবান প্রতিনিধিদের সঙ্গে দোহায় সাক্ষাৎ করেন। বেশ কয়েক মাস ধরেই কাতারের রাজধানীতে এ দুই পক্ষ একের পর এক বৈঠক-আলোচনা করছেন। কিন্তু এখনো কোনো সমঝোতায় পৌঁছানো সম্ভব হয়নি।

আফগান সরকারের পক্ষে থেকে আলোচনায় অংশ নিয়েছেন দেশটির সরকারের উচ্চ পর্যায়ের বেশ কয়েকজন কর্মকর্তা। তাদের মধ্যে রয়েছেন দেশটির সাবেক প্রধান নির্বাহী আব্দুল্লাহ আব্দুল্লাহ।

আফগান সরকারের আলোচনাকারী দলের মুখপাত্র ফ্রাইদুন খাওয়াজুন আল জাজিরাকে বলেন, ‘তালেবান প্রতিনিধিদের সঙ্গে আব্দুল্লাহ আব্দুল্লাহ গুরুত্বপূর্ণ ও জরুরি বিষয়গুলো নিয়ে আলোচনা করবেন।’ তিনি বলেন, ‘আফগানিস্তানে সংঘাতের সমাধান সংলাপের মধ্যেই নিহিত। সংলাপের মাধ্যমেই শান্তি ফিরিয়ে আনা সম্ভব।’

একইভাবে তালেবানও বিশ্বাস করে সংলাপের মাধ্যমে সমস্যার সমাধান সম্ভব। তালেবান মুখপাত্র মোহাম্মদ নাঈম বলেন, তার সংগঠন বরাবরই সংলাপ ও আলোচনার বিষয়ে প্রস্তুত থাকার কথা বলে আসছে। তিনি বলেন, ‘সমস্যার সমাধান কেবল সংলাপেই হতে পারে। তবে আফগান সরকারের সেই আন্তরিকতা থাকতে হবে।’

তারা যখন সংলাপে সমস্যার সমাধান খুঁজছেন, ঠিক তখন আফগানিস্তানের কোথাও না কোথাও সরকারি বাহিনীর সঙ্গে লড়াই চালিয়ে যাচ্ছে তালেবানরা। এতে ঘটছে প্রাণহানি। সম্প্রতি বেশ কয়েকটি সীমান্ত স্থলবন্দর দখলে নেয় তালেবানরা। এর আগে তালেবানদের পক্ষ থেকে দাবি করা হয়, আফগানিস্তানের সিংহভাগ এলাকাই এখন তাদের দখলে। অবশ্য আফগান সরকার এ দাবি অস্বীকার করেছে।