ওমিক্রনের বিরুদ্ধে বিদ্যমান টিকার ব্যর্থতা ‘একেবারেই অসম্ভব: ডব্লিওএইচও

bnews71.com

 

নিউজ ডেস্কঃ করোনার নতুন ধরন ওমিক্রন পূর্বের ধরনগুলোর চেয়ে বেশি মারাত্মক হবে এমনটা মনে করছে না বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা  (ডব্লিওএইচও)। আর এই ওমিক্রনের পক্ষে পূর্ণ ডোজ টিকার সুরক্ষা ভেদ করা প্রায় অসম্ভব ব্যাপার। ডব্লিওএইচও’র একজন শীর্ষ কর্মকর্তা এ কথা বলেন।

 

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার সেকেন্ড-ইন-কমান্ড মঙ্গলবার বার্তা সংস্থা এএফপিকে বলেন, ব্যাপকভাবে জিনগত রূপ পরিবর্তন করে আসা নতুন এ ধরন সম্পর্কে এখনো অনেক কিছুই অজানা থাকলেও প্রাথমিকভাবে হাতে আসা তথ্য-উপাত্ত ইঙ্গিত দিচ্ছে, ডেলটা কিংবা করোনার অন্য ধরনগুলোর চেয়ে ওমিক্রন মানুষকে বেশি অসুস্থ করতে পারবে না।

 

সংস্থাটির জরুরি সেবাবিষয়ক পরিচালক মাইকেল রায়ান আরো বলেন,প্রাথমিকভাবে আসা তথ্য-উপাত্ত করোনার নতুন এ ধরন গুরুতর অসুস্থতার কোনো ইঙ্গিত দিচ্ছে না। বরং মারাত্মকভাবে অসুস্থতা কম হওয়ারই ইঙ্গিত দিচ্ছে। অবশ্য এ নিয়ে তিনি আরও গবেষণার ওপর জোর দিয়েছেন।

 

মাইকেল রায়ান আরও বলেন, করোনার নতুন এ ধরন শনাক্ত হয়েছে খুব বেশি দিন হয়নি। তাই এর যে কোনো ইঙ্গিত ব্যাখ্যার বিষয়ে খুব সতর্ক থাকতে হবে। তিনি বলেন, একই সঙ্গে কোভিডের বিদ্যমান টিকাগুলো থেকে পাওয়া সুরক্ষা যে ওমিক্রন পুরোপুরি পাশ কাটিয়ে যেতে পারবে এমন কোনো ইঙ্গিতও পাওয়া যায়নি।

 

রায়ান(৫৬)আরও বলেন, ‘আমাদের হাতে আছে উচ্চমাত্রার কার্যকর টিকা। গুরুতর অসুস্থতা কিংবা হাসপাতালে ভর্তি হওয়ার দিক বিবেচনায় এ পর্যন্ত আসা করোনার সব কটি ধরনের ক্ষেত্রে এসব টিকায় সুরক্ষার বিষয়টিও প্রমাণিত।’

 

ডব্লিওএইচও’র কর্মকর্তা বলেন, এটা ভাবার কোনো কারণ নেই যে ওমিক্রনের ক্ষেত্রেও এমনটা হবে না।
তিনি আরো বলেন, করোনার সকল ধরনের বিরুদ্ধে সবচেয়ে কার্যকর অস্ত্র টিকা।
উল্লেখ্য, মাত্র কয়েকসপ্তাহ আগে শনাক্ত হওয়া করোনার ওমিক্রন ধরন ছড়িয়ে পড়েছে বিশ্বের অনেকগুলো দেশে।