নায়িকা পরীর ‘মম’ আটক!

বিনোদন ডেস্ক : ঢাকাই ছবির নায়িকা পরীমণি, যিনি মাদক মামলায় গ্রেপ্তার, তার অনৈতিক কাজের সহযোগিতা করায় নাট্যনির্মাতা চয়নিকা চৌধুরীকে আটক করেছে গোয়েন্দা পুলিশ। শুক্রবার (০৬ আগস্ট) সন্ধ্যায় পান্থপথ এলাকা থেকে চয়নিকাকে আটক করা হয়। এই নাট্যনির্মাতাকে নিজের ‘মম’ বলে সম্বোধন করেন চিত্রনায়িকা পরীমণি।

বিভিন্ন সময় তাদের দুজনকে একসঙ্গে দেখা যায়। পরীমণির বিভিন্ন কর্মকাণ্ডে সবসময় পাশে ছিলেন এই নির্মাতা। বিশেষ করে গত মাসে ঢাকার সাভারে উত্তরা বোটক্লাব কাণ্ডে সর্বদা পাশে থেকে পরীমণিকে সাহস জুগিয়েছিলেন চয়নিকা। ঢাকা বোর্ড ক্লাবের ঘটনায় পরীমণি চয়নিকাকে কাছে পেলেও পরীমণির বাসায় যখন র্যা ব অভিযান চালায় তখন চয়নিকাকে দেখা যায়নি।

পরীমণি আটকের খবরটি গণমাধ্যম ও সোশ্যাল মিডিয়ার প্রকাশ হলেও তখনও নাট্যনির্মাতা চয়নিকা চৌধুরীও উধাও ছিলেন। এবার বিপদে মেয়ের কাঁধে হাত রেখে সান্ত্বনা দিতে দেখা যায়নি তাকে।

চয়নিকাকে গ্রেপ্তার করার আগ মুহূর্তে র‌্যাবের অতিরিক্ত মহাপরিচালক কর্নেল কে এম আজাদ বলেন, পরীমণি সংশ্লিষ্টে তার (চয়নিকার) উপর আমরা নজরদারি অব্যাহত রেখেছি। আমাদের কাছে বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ তথ্য রয়েছে।

প্রসঙ্গত, নির্মাতা চয়নিকা চৌধুরী নির্মিত চলচ্চিত্র ‘বিশ্বসুন্দরী’ তে অভিনয় করেন নায়িকা পরীমনি। বিভিন্ন সময় তাদের দুজনকে একসঙ্গে দেখা যায়। পরীমনিকে আটকের পর বৃহস্পতিবার (৫ আগস্ট) চয়নিকা চৌধুরী সংবাদমাধ্যমকে বলেন, ‘অন্যদের মতো টেলিভিশন লাইভে আমিও ঘটনাটি দেখেছি। তবে পরীমনির বাসায় যাইনি। কারণ এটা আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর ব্যাপার। তারা যা ভালো বুঝবেন, সেটাই করবেন।’

তবে গোয়েন্দা কার্যালয়ে জিজ্ঞাসাবাদের চার ঘন্টা পর চয়নিকা চৌধুরীকে পরিবারের জিম্মায় ছেড়ে দেয়া হয়েছে।