মিম মানতাসা শিক্ষককে বিয়ে করেই লাপাত্তা!

বিনোদন ডেস্ক : ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের এক শিক্ষককে অনেকটা গোপনেই কিছুদিন আগেই বিয়ে করেছিলেন লাক্স তারকা মিম মানতাসা। এরপর থেকেই লাপাত্তা এই অভিনেত্রী। নানাভাবে খুঁজে হয়রান নির্মাতা, প্রযোজক ও শুটিং ইউনিট। বিপাকে পড়া নির্মাতা ও প্রযোজকরা বলছেন, ফোনে পাওয়া যাচ্ছে না তাকে। অনেকবার ক্ষুদে বার্তাও পাঠানো হয়েছে। কিন্তু কোনো ধরনের সাড়াশব্দ নেই তার। বর্তমানে মাছরাঙা টেলিভিশনে চলছে ধারাবাহিক নাটক ‘১০০ তে একশ’। এতে অভিনয় করেছেন মিম মানতাসা।

পরবর্তী লটের শুটিংয়ের জন্য ১৮ মার্চ থেকে তার চার দিনের শিডিউল নিয়েছিলেন পরিচালক আবু হায়াত মাহমুদ। ‘১০০ তে একশ’-এর শুটিং হবে পুবাইলের একটি শুটিং বাড়িতে। শিডিউল অনুযায়ী এরইমধ্যে সেট প্রস্তুত। কিন্তু হঠাৎ করেই লাপাত্তা হয়ে গেছেন অভিনেত্রী। এতে শুটিং নিয়ে তৈরি হয়েছে অনিশ্চয়তা। এ বিষয়ে আবু হায়াত মাহমুদ গণমাধ্যমকে জানান, মিমের শিডিউল গত মাসেই ঠিক করা হয়েছিল।

এমনকি ম্যাসেজের মাধ্যমে দ্বিতীয়বার নিশ্চিত করাও হয়েছিলো। বিয়ের পর নির্মাতা মিমকে শুভেচ্ছা জানানোর জন্য ফোন করলেও ফোন ধরেননি অভিনেত্রী। এছাড়াও আরো বেশ কয়েকবার তাকে ফোনে চেষ্টা করলেও পাওয়া যায়নি। নির্মাতা ছাড়াও নাটকের প্রযোজক ও সহকারী পরিচালকও অভিনেত্রীর সঙ্গে যোগাযোগের চেষ্টা করে ব্যর্থ হয়েছেন। এখন মিমের বিকল্প কাউকে নাটকে নেয়ার কথা ভাবছেন পরিচালক।

এদিকে ঈদুল ফিতরকে কেন্দ্র করে এখন সব তারকা তুমুল ব্যস্ত। এর মধ্যে নতুন কারও শিডিউল পাওয়াটাও বেশ ঝামেলা বলে জানান পরিচালক আবু হায়াত। তিনি বলেন, নাটক থেকে একটি চরিত্র বাদ দেয়াটা কঠিন। গল্পে ধারাবাহিকতা ঠিক রাখা নিয়েও সমস্যায় পড়তে হয়। তবে মিমকে পাওয়া না গেলে বিকল্প চিন্তা আমাদের করতেই হবে।

প্রসঙ্গত, জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের চারুকলা বিভাগের শিক্ষার্থী মিম মানতাসা। লাক্স সুপারস্টার হিসেবে ২০১৮ সালে মুকুট জয়ের পর মডেলিংয়ের পাশাপাশি নাটকেও অভিনয় করছেন নিয়মিত। গত বছর বন্ধন বিশ্বাসের পরিচালনায় ‘জাল’ নামের একটি ৮ পর্বের ওয়েব সিরিজে অভিনয় করেন মিম।

গত শুক্রবার (১৩ মার্চ) দিবাগত রাতে রাজধানীর সিক্স সিজন হোটেলে তার বিয়ে (আকদ) এর আনুষ্ঠানিকতা সম্পন্ন হয়। পাত্র পেশায় একজন শিক্ষক। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের আইবিএ বিভাগের সহকারী অধ্যাপক হিসেবে কর্মরত রয়েছেন।